কিচ্ছু বলবো না সব ঈদ ইদ হয়ে গেলেও
কিচ্ছু কইবো না সব রমজান রামাদান হয়ে গেলেও
কোন ক্ষোভ থাকবে না সব বাঙালী একদিন বাঙ্গালী হলেও
ইতিমধ্যে আর ইতোমধ্যের পার্থক্য জেনে কি হবে আমার?
বাড়ি যদি কথনো বারিও হয়ে যায়, চোখের জলে ঘরবারি কোনটাই ভাসাবো না কেঁদে
প্রাণীরা সব প্রাণি হয়ে যাচ্ছে যাক, কি হবে ওসব ভেবে
শ্রীমতি একদিন শ্রিমতি হবে হয়তো, তাতে শ্রিমানের কি?
সময়ের স্রোতে একদিন কোরবানীও কোরবানি হয়ে যেতে চাইবে, যাক
গুণগুলো ক্ষয় হয়ে কারণ ছাড়া কারনকে খুঁজে মরুক- আমার কী?
নদী একদিন নদি হয়ে শুকিয়ে যেত পারে, সাঁতার না হয় সাতার হবে
কিন্তু
ভালবাসা মানে যদি শুধুই ভাল বাসা হয়,
দেশ যদি দেস হয়,
আর মানুষ যদি মানুস হয়ে যায় কখনো-
তাহলেই আমার অনেক কিছু যাবে আসবে
ভালবাস দেশ আর মানুষকে ঠিক রাখার জন্য
ইদকে আবার আমার ছেলেবেলার ঈদে রুপ দেবো,
চিরন্তন বাঙালীর মত বাড়িতে বসে বারি ঝড়াবো দু’চোখে
প্রাণিগুলোকে প্রাণীতে পরিণত করবো দুরন্ত যৌবনের মত
কৈশোরের মত সাঁতার কেটে কেটে নদীকে নদি হওয়া থেকে বাঁচাবো
দেশ মানুষ ও ভালবাসা’কে ঠিক রাখতে
সব শ্রীমান শ্রীমতি মিলে না হয় কোরবানী হবো তেমন হলে।
২০ মে ২০২০

মন্তব্য করুন